নিখোঁজ হেলালের শরীরের তিন খণ্ড পৃথক স্থান থেকে উদ্ধার, এক খুনি শনাক্ত

single-news-image

রাজধানি ঢাকার দক্ষিণখানে নিখোঁজ হেলাল উদ্দিন নামের এক যুবকের ক্ষতবিক্ষত মরদেহের তিন খণ্ড তিন জায়গা থেকে উদ্ধার করেছে পুলিস। মঙ্গলবার বিকালে পুলিস দক্ষিণখানের গাওয়াইর এলাকায় তার মস্তক উদ্ধার করে। এর আগে বিমানবন্দর এলাকার একটি ঝোপ থেকে গলা থেকে নাভি ও দক্ষিণখানের বটতলা এলাকা থেকে কোমর থেকে পায়ের অংশ উদ্ধার করে পুলিস। এ ঘটনায় সিসিটিভি ফুটেজ দেখে পুলিস হত্যাকারীদের মধ্যে এক যুবককে শনাক্ত করেছে।

হেলালের বাড়ি পিরোজপুর জেলার নেছারাবাদ থানার দইহাড়ি গ্রামে। মাদ্রাসায় পড়াশুনার পাশাপাশি তিনি দক্ষিণখানের আজমপুরে মোবাইল ফোন রিচার্জের ব্যবসা করতেন।

কোরানে হাফেজ হেলাল গত রবিবার রাত থেকে নিখোঁজ হন। তাঁকে ব্যক্তিগত বিরোধের জেরে হত্যা করা হতে পারে বলে ধারনা করছে পুলিস।

রাজধানির দক্ষিণখান থানায় নিহতের বড় ভাই হুজায়ফা হোসেন বাদী হয়ে একটি মামলা করেছেন। হত্যাকারীদের শনাক্তে ছায়া তদন্তে নেমেছে গোয়েন্দা পুলিস (ডিবি)।

ইতোমধ্যেই সিসিটিভি ফুটেজ থেকে হত্যাকাণ্ডে জড়িত সন্দেহে এক যুবককে শনাক্ত করেছে পুলিস। তাদের ধারণা সে-ই মূল হত্যাকারী। তবে তার সঙ্গে পরিকল্পনা ও বাস্তবায়নে আরও অনেকে ছিল বলে ধারণা পুলিসের। তবে এখনো পর্যন্ত এই মামলায় কাউকে গ্রেপ্তার করা সম্ভব হয়নি। কালের কন্ঠ