সাভারে অন্তঃসত্ত্বা নারীর আত্মহত্যার অভিযোগ

single-news-image

(আপলোড: ২১:৪০, আগস্ট ১০, ২০১৮)

আহসান উল্লাহ, সাভার:

ভাকুর্তায় এক নারী তার সন্তানকে বাথরুমে আটকে আত্মহত্যা করেছেন বলে অভিযোগ ওঠেছে। শুক্রবার দুপুরে ভাকুর্তা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। তার নাম রত্না আক্তার। তিনি ভাকুর্তা পল্লী বিদ্যুৎ অফিস ইনচার্জ খায়রুল ইসলামের স্ত্রী। দুই সন্তান ও স্ত্রীকে নিয়ে জমির উদ্দিনের বাড়িতে ভাড়া থাকেন খায়রুল। ঘটনার সময় তিনি অফিসে ছিলেন বলে জানান।

তৃতীয় শ্রেণিতে পড়ুয়া তাদের সন্তান রুদ্র জানায়- ‘মা আমাকে বাথরুমে ঢুকিয়ে বাইরে থেকে দরজা বন্ধ করে দেন। অনেকক্ষণ পর আমার ছোট ভাই দরজা খুলে দিলে মাকে সিলিং ফ্যানের সঙ্গে ওড়না প্যাঁচিয়ে ঝুলে থাকতে দেখি’।

খায়রুল ইসলাম জানান, তার স্ত্রী রত্না আক্তার মানসিক রোগে ভুগছিলেন। ২০১৬ সালে সাভার ল্যাবজোন হাসপাতালে চিকিৎসা নেয়ার পর ৬-৭ মাস ভালো ছিলেন। পরে মাঝে মধ্যে সমস্যা দেখা দিত। রত্না নয় মাসের অন্তঃসত্ত্বা ছিলেন। সকালে চেকআপের জন্য তার হাসপাতালে যাওয়ার কথা ছিল বলেও জানান খায়রুল।

ভাকুর্তা পুলিশ ফাঁড়ির এস আই সুজন মরদেহ উদ্ধার করে মর্গে পাঠান। রত্নার বাড়ি পাবনার পোরাডাঙ্গায়। আর খায়রুলের বাড়ি একই জেলার বন খোলায়।