‘ভূমির অপরিকল্পিত ব্যবহারে হুমকিতে খাদ্য উৎপাদন’

single-news-image

সালাহ উদ্দিন আহমেদ, দিনাজপুর:

আবাসন, উন্নয়নকাজ, রাস্তাঘাট নির্মাণ, ও শিল্প-কারখানা স্থাপনের কারণে ভূমির প্রকৃতি ও শ্রেণীতে পরিবর্তন হচ্ছে। কমছে কৃষিজমি, বনভূমি, টিলা, পাহাড় ও জলাশয়। হুমকির মুখে খাদ্য উৎপাদন ও পরিবেশ। আর তা হচ্ছে ভূমির অপরিকল্পিত ব্যবহারের কারণে। দিনাজপুরে এক আলোচনায় বক্তারা এসব কথা বলেন।

বুধবার দিনাজপুর প্রেসক্লাবে বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা ডেভেলেপমেন্ট অ্যাসোসিয়েশন- সিডিএ আয়োজিত কৃষি ও বনভূমির ব্যবহার নীতিমালা নিয়ে আলোচনা সভায় এসব কথা ওঠে আসে।

বক্তব্য রাখেন কৃষি সম্প্রসারণ বিভাগের উপ-পরিচালক তৌহিদুল ইকবাল, জেলা পশু কর্মকর্তা সাইফুল ইসলাম, উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা আলিমুজ্জামান, আয়োজক সংস্থা সিডিএ এর নির্বাহী পরিচালক শাহ মবিন জিন্নাহ। উন্মুক্ত আলোচনায় অংশ নেন শিক্ষক সফিকুল ইসলাম, হারুনুর রহমানসহ বিভিন্ন শ্রেণি পেশার প্রতিনিধিরা।

আলোচকরা বলেন- আইন প্রয়োগে শুধু সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীরাই নয়, সম্মিলিতভাবে সবাইকে এগিয়ে আসতে হবে। ভূমির অপরিকল্পিত ব্যবহার রোধ করতে হবে। ধরে রাখতে হবে ভূমির প্রকৃতি ও শ্রেণী।

কৃষি সম্প্রসারণ বিভাগের উপ-পরিচালক তৌহিদুল ইকবাল বলেন- অপরিকল্পিত ভূমি ব্যবহারের ফলে একসময় ভূমিহীনের সংখ্যা ভয়ানক আকার ধারণ করবে। বর্তমানে বাংলাদেশ ধান উৎপাদনে পৃথিবীর মধ্যে চতুর্থ অবস্থানে রয়েছে। কিন্তু জমি কমলে, বাধাগ্রস্ত হবে উৎপাদন।